চাকরী মেলা

বুটেক্সের শিক্ষার্থীদের গ্রাজুয়েশন শেষ হওয়ার আগেই চাকরি!

চাকরীর এমন কঠিন বাজারে গ্রাজুয়েশন শেষ করেও হাজারো গ্র‍্যাজুয়েট দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছে চাকরির অভাবে। ঠিক যেন তার বিপরীত চিত্র বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় (বুটেক্স) এর শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে।বুটেক্সে অনুষ্ঠিত চাকরী মেলায় ৪১ তম ব্যাচের অনেক শিক্ষার্থী নির্বাচিত হলেন চাকরীর জন্য। কিন্তু অবাক করার বিষয় হলো তাদের ফাইনাল পরীক্ষায় এখনো শেষ হয়নি।

গতকাল ১২ ই ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বুটেক্স কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বুটেক্স ৪১ তম ব্যাচের জন্য অনুষ্ঠিত হলো চাকরী মেলা-২০১৯। বুটেক্স ক্যারিয়ার ক্লাবের উদ্যোগে আয়োজিত উক্ত মেলায় অংশগ্রহণ করে স্কয়ার, ডিবিএল, অকোটেক্স, মাসকো সহ দেশের স্বনামধন্য ১৯ টি টেক্সটাইল ইন্ডাস্ট্রি। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা তাদের প্রতিষ্ঠানে কাজ করার জন্য শিক্ষার্থীদের আগ্রহী করে তোলার জন্য বক্তব্য প্রদান করেন। এসময় তারা তাদের প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন অর্জন, কাজের পরিবেশ, ধরণ এবং সুযোগ-সুবিধার ব্যাপারে আলোচনা করেন।

উক্ত মেলায় বুটেক্স ৪১ তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা তাদের পছন্দের প্রতিষ্ঠানে কাজ করার জন্য সিভি প্রদান করে এবং কিছু প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীদের ভাইভা ও গ্রহণ করে। এসময় ৪১ তম ব্যাচের এক শিক্ষার্থী জানান, গ্র‍্যাজুয়েশন শেষ করার আগেই ক্যাম্পাসে বসে চাকরী পাওয়ার এমন সুযোগ সত্যিই প্রশংসনীয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বুটেক্স ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ আবুল কাসেম। তিনি মেলার প্রতিটি বুথ পরিদর্শন করেন এবং তাদের প্রতিনিধিদের সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি শীর্ষ পাঁচ চাকরী প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান কে বুটেক্সের পক্ষ থেকে সম্মাননা প্রদান করার ঘোষণা প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্বাবধানে ছিলো বুটেক্স ক্যারিয়ার ক্লাবের অর্ধশতাধিক ভলান্টিযার। বুটেক্স ক্যারিয়ার ক্লাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, প্রতিবছর ই চাকরী মেলার আয়োজন করা হবে। এছাড়াও আগামী বছরগুলোতে আরো বড় পরিসরে মেলা আয়োজনের আশা প্রকাশ করেন তারা।

সূত্র: ডেইলিক্যাম্পাস