সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে জবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। এসময় প্রতিশ্রুত সুপার গ্রেডে শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্তি ও স্বতন্ত্র বেতন স্কেল প্রবর্তনের দাবি জানান শিক্ষকরা।রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক মো. সেলিম বলেন, আমরাতো শিক্ষক মানুষ, তাই কম বুঝি হয়তো। তাই আমাদের ওপর এ পেনশন স্কিম চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে। স্কিমে কন্ট্রিবিউট করলে পাবেন, না হলে পেনশন পাবেন না। বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরিটাকে হেয় করার জন্য এমনটা করা হচ্ছে। দেশে কোনো সমস্যা না থাকলে আমলারা সমস্যা সৃষ্টি করে।

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে জবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জাকারিয়া মিয়া বলেন, আমরা আজ এখানে নতুন কোন দাবি নিয়ে দাঁড়ায়নি, শিক্ষক হিসেবে আমরা যে সুবিধা পেয়ে আসছিলাম আমাদের সেই অধিকার কেড়ে নেওয়ার প্রতিবাদে দাঁড়িয়েছি। আমরা এমন কিছু করতে চাইনা যাতে স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রম বিঘ্নিত হয়।

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে জবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

জবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেন বলেন, সরকার প্রথমে চালু করেছিল যারা পেনশন সুবিধা পান না তাদের জন্য। কিন্তু পরে কোনো এক কুচক্রীমহল এটা করেছে। পরবর্তী কর্মসূচিতে যাতে যেতে না হয়, তার আগেই আশা করি সরকার আমাদের দাবি মেনে নেবে। প্রত্যয় স্কিম থেকে শিক্ষকদের বাদ দিতে হবে।

জবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. শেখ মাশরিক হাসান বলেন, আমাদের শিক্ষকতা পেশাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। অনতিবিলম্বে শিক্ষকদের প্রতি বৈষম্যমূলক প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার করে প্রতিশ্রুত সুপার গ্রেডে স্থাপন করতে হবে। অন্যথায় আমরা নতুন কর্মসূচী ঘোষণা করবো।

 

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে জবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

 

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, বিভাগের চেয়ারম্যান ও বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।প্রসঙ্গত, জবি শিক্ষক সমিতি আগামী মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত দুই ঘন্টার কর্মবিরতি পালন করবে একই দাবিতে।

আরও দেখুনঃ