রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তনে অংশ নেবে ৩৪৩৮ শিক্ষার্থী

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১তম সমাবর্তন আগামী ৩০ নভেম্বর। এতে অংশ নেবেন ২০১৫ ও ২০১৬ সালে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি অর্জনকারী স্নাতকরা। জানা গেছে, এই দুই শিক্ষা বছরে ডিগ্রি পাওয়া অর্ধেক গ্র্যাজুয়েট নিবন্ধন করেছেন। শিক্ষকদের ক্ষেত্রেও একই চিত্র। অতিরিক্ত নিবন্ধন ফির কারণে শিক্ষার্থীদের নিবন্ধন সংখ্যা কমেছে বলে ধারণা সংশ্লিষ্টদের।

সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। সমাবর্তন বক্তা থাকবেন বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ ও পশ্চিমবঙ্গের বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি প্রফেসর ড. রঞ্জন চক্রবর্তী। একাদশ সমাবর্তন প্রচার উপ-কমিটির সদস্য সচিব ও জনসংযোগ প্রশাসক প্রফেসর ড. প্রভাষ কুমার কর্মকার জানান, এবারের সমাবর্তনে তিন হাজার ৪৩৮ জন গ্র্যাজুয়েট ও ১ হাজার ২০২ শিক্ষকদের মধ্যে ৬২৮ জন শিক্ষক নিবন্ধন করেছেন।

এদিকে গ্র্যাজুয়েটদের অনেকে বলেছেন, স্নাতকোত্তর ক্যাটাগরিতে তিন হাজার ৫৭০ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। যা অযৌক্তিক ও অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় অনেক বেশি। গ্র্যাজুয়েট শিক্ষার্থীদের অনেকেই এখনো বেকার। তাই সমাবর্তনে অংশ নেয়া তাদের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা বলেন, এর আগে সমাবর্তনের সাল ও পাসের সালে অনেক গ্যাপ ছিল। ফলে অনেক শিক্ষার্থী নিবন্ধন করেছিল। এবার ২০১৫ ও ২০১৬ সালের শিক্ষার্থীদের সুযোগ দেয়া হয়েছে যাদের অধিকাংশই এখনো প্রতিষ্ঠিত হতে পারেনি। এ কারণেই নিবন্ধনকারী স্নাতকের সংখ্যা কিছুটা কম। ২০১৮ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর ১০ম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ৬ হাজার ১৪ জন গ্র্যাজুয়েট নিবন্ধন করেছিলেন।

সূত্র:যুগান্তর